৬১ লাখ টাকা ফেরত দেওয়ার পুরস্কার 'অটোরিকশা' পেলেন সজিব

চাঁদপুরে ৬১ লাখ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া সেই অটোরিকশাচালক সজিবকে পুরস্কৃত করেছে বিকাশ। বুধবার দুপুরে চাঁদপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের উপস্থিতিতে তাকে একটি অটোরিকশা প্রদান করে বিকাশ কর্তৃপক্ষ। এ সময় অটোরিকশার চাবি সজিবের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

৬১ লাখ টাকা ফেরত দেওয়ার পুরস্কার 'অটোরিকশা' পেলেন সজিব
ছবি: সংগৃহীত ৬১ লাখ টাকা ফেরত দেওয়ার পুরস্কার 'অটোরিকশা' পেলেন সজিব

চাঁদপুরে ৬১ লাখ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া সেই অটোরিকশাচালক সজিবকে পুরস্কৃত করেছে বিকাশ। বুধবার দুপুরে চাঁদপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের উপস্থিতিতে তাকে একটি অটোরিকশা প্রদান করে বিকাশ কর্তৃপক্ষ। এ সময় অটোরিকশার চাবি সজিবের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

এ সময় সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, চাঁদপুরে বিকাশের পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল, সজিবের বাবা দিনমজুর দেলোয়ার সর্দারসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে চাঁদপুর শহরে পুরানবাজারের দিনমজুর দেলোয়ার সর্দারের ছেলে সজিব এমন একটি অটোরিকশা পেয়ে এখন বেশ খুশি। এতোদিন অন্যের থেকে ভাড়ায় নিয়ে অটোরিকশা চালাতো। এখন তা নিজের হওয়ায় ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান বিকাশ কর্তৃপক্ষকে।

বিকাশের চাঁদপুর পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল জানান, চালক সজিব সততার যেই পরিচয় দিয়েছে। তার পুরস্কারস্বরূপ তাকে স্বচ্ছলভাবে জীবিকা নির্বাহ করতে একটি অটোরিকশা প্রদান করেন তিনি। 

চাঁদপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান, এমন একজন সজিবের মতো প্রতিটি মানুষ সততার মধ্য দিয়ে দেশকে এগিয়ে নেবেন। এমন প্রত্যাশা করে সজিবকে পুরস্কৃত করায় বিকাশকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত রবিবার চাঁদপুর ইউসিবিএল ব্যাংক থেকে ৬১ লাখ টাকা তুলে কর্মস্থলে ফেরার পথে বিকাশকর্মী মাসুদ ভুল করে তা অটোরিকশায় ফেলে যান। ওই দিনই ৭ ঘণ্টা পর চালক সজিব পুলিশের মাধ্যমে সেই টাকা প্রকৃত মালিক বিকাশ পরিবেশককে ফিরিয়ে দেয়। এই নিয়ে তাৎক্ষণিক জেলা পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে চালক সজিবের সততার জন্য নগদ ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন। একই সঙ্গে চাঁদপুরে বিকাশ পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল একটি অটোরিক্শা দিয়ে তার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পূরণ করেন।

সূএ কালেরকন্ঠ