গাছের ডাল ভাঙ্গার অপরাধে প্রতিবন্ধি শিশু ও তার নানীকে মারধর

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে মেহগনি গাছের ডাল ভাঙ্গার অপরাধে এক প্রতিবন্ধি শিশুকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তাকে রোববার সকালে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

গাছের ডাল ভাঙ্গার অপরাধে প্রতিবন্ধি শিশু ও তার নানীকে মারধর
ছবি: সংগৃহীত গাছের ডাল ভাঙ্গার অপরাধে প্রতিবন্ধি শিশু ও তার নানীকে মারধর

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে মেহগনি গাছের ডাল ভাঙ্গার অপরাধে এক প্রতিবন্ধি শিশুকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তাকে রোববার সকালে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ওই প্রতিবন্ধি শিশুর নাম মেহেদী মল্লিক (১০)। সে উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের ঘিকমলা গ্রামের সিদ্দিক মল্লিকের ছেলে। উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের নানা মানিক শেখের বাড়িতে সে থাকে।

প্রতিবন্ধি শিশু মেহেদী মল্লিকের নানী রেবেকা বেগম বলেন, শনিবার বিকাল ৫টার দিকে দুর্গাপুর গ্রামের নুরুল আমিন ভুঁইয়ার মেহগনির বাগানে খেলতে গিয়ে একটি মেহগনি গাছের ডাল ভেঙ্গে ফেলে মেহেদী। তখন নুরুল আমিন ভুঁইয়ার মেয়ে রিতা খাতুন তা দেখে প্রতিবন্ধি মেহেদীকে এলোপাথারি কিল, ঘুষি, লাথিসহ গলা চেপে ধরে মারধর করে। তার চিৎকারে আমি এগিয়ে গেলে নুরুল আমিন ভুঁইয়া ও রিতা মিলে আমাকেও মারধর করে। রাতে মেহেদীর শাররিক অবস্থা খারাপ হলে তাকে রোববার সকালে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে নুরুল আমিন ভুঁইয়ার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

সূএ নয়াদিগন্ত