করোনা আতঙ্কে ছেলেকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখছেন মা

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় করোনাভাইরাসের আতঙ্কে এক মাদরাসার ছাত্রকে শিকল দিয়ে একটি দোকানে বেঁধে রেখেছেন মা। এনিয়ে এলাকায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে। ছবিটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা গেছে।

করোনা আতঙ্কে ছেলেকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখছেন মা
ছবি: সংগৃহীত করোনা আতঙ্কে ছেলেকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখছেন মা

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় করোনাভাইরাসের আতঙ্কে এক মাদরাসার ছাত্রকে শিকল দিয়ে একটি দোকানে বেঁধে রেখেছেন মা। এনিয়ে এলাকায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে। ছবিটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের রাংতা গ্রামের মো.রশিদ হাওলাদারের ছেলে ও চাদশী হাফেজিয়া মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণীর ছাত্র গোলাম রাব্বানী (৮) এই করোনাভাইরাসের মধ্যেও গ্রামের বিভিন্ন স্থানে সারা দিন ঘুরে বেড়ায়। তাকে একাধিকবার বাড়ির বাইরে ঘুরতে যাওয়ার জন্য নিষেধ করা হলেও সে কারো কথা শুনেনি। সে পরিবারের নিষেধ অমান্য করে বৃহস্পতিবার সারা দিন গ্রামের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে।

আর যাতে সে ঘরের বাইরে বেড়াতে যেতে না পারে সেজন্য গোলাম রাব্বানীর মা শেফালী বেগম শুক্রবার সকাল থেকে রাজিহার-গৌরনদী সড়কের রাংতা ব্রিজের কাছের একটি চায়ের দোকানে মাদরাসা ছাত্র গোলাম রাব্বানীকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখেন।
এ ছবিটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা গেছে। এ ব্যাপারে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.আফজাল হোসেন বলেন, ছোট ছেলে ঘুরে বেড়ালেও তাকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা যাবে না। বেঁধে রাখা হলেও সেটি হবে অমানবিক। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূএ নয়াদিগন্ত