অন্তঃসত্ত্বা নারীকে প্রাণনাশের হুমকি চেয়ারম্যানের

রাজশাহীর পুঠিয়ায় সরকারী ত্রাণ চাওয়ায় অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে লাঞ্ছিত করার পর এবার তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই নারী ইউপি চেয়ারম্যানসহ চারজনের বিরুদ্ধে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

অন্তঃসত্ত্বা নারীকে প্রাণনাশের হুমকি চেয়ারম্যানের
প্রতিকী ছবি

রাজশাহীর পুঠিয়ায় সরকারী ত্রাণ চাওয়ায় অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে লাঞ্ছিত করার পর এবার তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই নারী ইউপি চেয়ারম্যানসহ চারজনের বিরুদ্ধে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

থানার ডায়েরি সূত্রে জানা গেছে, গত ৯ জুন সকাল ১১টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড পালোপাড়া-তাহেরের মোড় এলাকায় ভূক্তভোগী চামেলী বেগমকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় ওইদিন সন্ধ্যায় ভূক্তভোগী নারী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। ডায়েরিতে হুমকিদাতা হিসাবে ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফ খান ঝন্টু ও তার কথিত প্রতিনিধি মোতাহার আলীসহ চারজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আশরাফ খান ঝন্টু হুমকি দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমি সাধারণ ডায়েরির বিষয়ে কিছুই জানি না। আমার বিরুদ্ধে ওই নারীকে ব্যবহার করে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, চামেলী বেগমকে লাঞ্ছিত ঘটনার পর তিনি থানায় একটি অভিযোগ দেন, যা এখনো তদন্তাধীন। এরপর গত মঙ্গলবার ওই নারীকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে মর্মে, তিনি অপর একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। আমরা বিষয়গুলো খতিয়ে দেখছি।

উল্লেখ্য, গত ৩ জুন নরসুন্দর শরীফুল ইসলামের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী চামেলী বেগম সদর ইউনিয়নের পালোপাড়া-তাহেরের মোড় এলাকায় চেয়ারম্যানের কথিত প্রতিনিধি মোতাহার আলীর বাড়িতে সরকারী ত্রাণ চাইতে যান। সেখানে ত্রাণ না পাওয়ার কারণ জানতে চাইলে মোতাহার আলী তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। এ ঘটনায় ওইদিন রাতে চামেলী বেগম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

সূএ নয়াদিগন্ত